থাইরয়েড কি?

ছোট প্রশ্নের ছোট উত্তর স্বাস্থ্য

আজকের লেখায় থাইরয়েড কি তা নিয়ে জানবো। থাইরয়েড মূল একটি গ্রন্থির নাম‚ যেটা মানুষের গলার নিচের দিকে থাকে। বাংলাদেশে থাইরয়েড রোগীর আনুমানিক সংখ্যা প্রায় দুই কোটি চল্লিশ লক্ষ। দেশে অন্য যে কোন রোগের রোগীর চেয়ে থাইরয়েড রোগীর সংখ্যা আশঙ্কাজনকভাবে বেশি। 

থাইরয়েডের কাজ হল হরমোন সিক্রেট করা যেটা শরীরের কাজকে নিয়ন্ত্রণ ও পরিবর্তন করে। বর্তমানে থাইরয়েড গ্রন্থির ভিভিন্ন সমস্যা বিশ্বে অন্যতম একটি হরমোনজনিত সমস্যা হিসেবে চিহ্নিত। হরমোনজনিত রোগের ক্ষেত্রে ডায়াবেটিসের পরই থাইরয়েড রোগের অবস্থান। এই সমস্যায় মূলত নারীরাই বেশি ভুগে থাকেন।

থাইরয়েড কি?

থাইরয়েড হলো আমাদের শরীরের একটি গ্রন্থি যা আমাদের গলার নিম্ন-সামনের দিকে অবস্থিত। এই গ্রন্থি থেকে খুবই প্রয়োজনীয় হরমোন নিঃসৃত হয়। এই হরমোন আমাদের বিপাক সহ আরো অন্যান্য কাজে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। 

থাইরয়েড কি

এই হরমোন তৈরি করার জন্য এই গ্রন্থিটির প্রয়োজনীয় পরমাণে আয়োডিনের প্রয়োজন হয়। এই হরমোন আমাদের বিপাক ক্রিয়াকে এবং অন্যান্য বিভিন্ন শারীরিক এবং মানসিক বৃদ্ধিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।

আমাদের গলার সামনের দিকে প্রজাপতি আকৃতির যা ঘাড়ের শ্বাসনালীর (বায়ুপ্রবাহ) সামনে থাকে সেই গ্রন্থিটির নাম থাইরয়েড। মানুষের বৃদ্ধি‚ শারীরবৃত্তিক এবং বিকাশ আর বিপাকীয় নানা ক্রিয়া-প্রক্রিয়া সাধন করার জন্য এই গ্রন্থিটি থেকে নিঃসৃত থাইরয়েড হরমোন গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। 

আগেই বলেছি‚ বর্তমানে থাইরয়েড গ্রন্থির নানা সমস্যা বিশ্বে অন্যতম একটি হরমোনজনিত সমস্যা হিসেবে চিহ্নিত। হরমোনজনিত রোগের ক্ষেত্রে ডায়াবেটিসের পরপরই এর অবস্থান।

থাইরয়েড গ্রন্থি পুরুষের এডাম’স এপলের ঠিক নিচে অবস্থান করে। থাইরয়েড গ্রন্থি থেকে থাইরয়েড হরমোন নিঃসৃত হয়। এই হরমোনগুলো প্রোটিন সিন্থেসিস এবং মেটাবলিক রেটকে প্রভাবিত করে। 

থাইরয়েড হরমোনের মধ্যে ট্রাইডোথাইরোনাইন  টি-থ্রি (T3) ও থাইরক্সিন  টি-ফোর(T4) আয়োডিন ও টাইরোসিন দ্বারা গঠিত হয়। থাইরয়েড ক্যালসিটোনিন নামে একধরনের হরমোন তৈরি করে যেটা ক্যালসিয়াম হোমিওস্ট্যাসিসে প্রভাব ফেলতে সক্ষম।

উপর্যুক্ত হরমোনগুলি থাইরয়েড গ্রন্থির মাধ্যমে সরাসরি রক্তে সিক্রেটেড হয় এবং শরীরের বিভিন্ন অঙ্গে যাতায়াত বা ভ্রমণ করে। এই হরমোনগুলি শরীরের বিপাকীয় ক্রিয়াকলাপকে ঠিকমতো নিয়ন্ত্রণ করে।

আমাদের আরো লেখা পড়ুন এখানে। ধন্যবাদ।


আমাদের আরো ব্লগ পড়ুন

শেয়ার করুন